মেনু নির্বাচন করুন

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

অবস্থান

 
চুয়েট প্রবেশপথ

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম জেলায় অবস্থিত। এটি চট্টগ্রাম শহরের থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে রাউজান উপজেলার পাহাড়তলী ইউনিয়নচট্টগ্রাম-কাপ্তাই মহাসড়কের পাশে অবস্থিত। কর্ণফুলী পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্র, যা দেশের সর্ববৃহত পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্র চুয়েট থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে কাপ্তাইতে অবস্থিত। ৪২০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন রাউজান তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র চুয়েট ক্যাম্পাসের পাশেই অবস্থিত।

ইতিহাস

 
ভাষা শহীদদের স্মরণে স্থাপিত স্মৃতি স্তম্ভ

চট্টগ্রামে একটি প্রকৌশল শিক্ষালয় প্রতিষ্ঠা করার উদ্দেশ্যে ২৮ ডিসেম্বর,১৯৬৮ সালে 'চট্টগ্রাম প্রকৌশল কলেজ' নামে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের অধীনে এটি যাত্রা শুরু করে। ভর্তি শুরু হয় ১৯৬৮-৬৯ শিক্ষাবর্ষ হতে।১লা জুলাই ১৯৮৬ সালে এটি বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি,(বিআইটি) চট্টগ্রাম রুপে উন্নীত করা হয়। পরবর্তীতে ১লা সেপ্টেম্বর, ২০০৩ সালে একটি সরকারী অধ্যাদেশের মাধ্যমে এটিকে পূর্ণাঙ্গ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের মর্যাদা দেয়া হয়[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]
এছাড়া বিআইটি ঢাকা, বিআইটি খুলনা ও বিআইটি রাজশাহী নামে আরো ৩টি ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি ছিল যেগুলি পরবর্তিতে যথাক্রমে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় তে রূপান্তর করা হয়।
১৯৭১ সালের বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে চুয়েটের তারেক হুদা এবং মোঃ শাহ নাম্নী ২ জন ছাত্র শহীদ হয়। তাঁদের নামে বর্তমানে ছাত্রদের দুটি আবাসিক হলের নামকরণ করা হয়েছে।

পরিবহণ ব্যবস্থা

চুয়েট শিক্ষার্থীদের পরিবহণের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ৭টি বাস সাপ্তাহিক কার্যদিবসগুলোতে ক্যাম্পাস ও শহরের মধ্যে যাতায়াত করে থাকে। বাসগুলো প্রতি কার্যদিবসে তিনবার শহর থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের আনা-নেওয়া করে । কাপ্তাই-রাস্তায় সাধারণ পরিবহণ হিসেবে সিএনজি-আটোরিক্সা এবং সীমিত সংখ্যক বাস চলাচল করে থাকে। তবে রাত ৮:০০ টার পর সাধারণ পরিবহণ বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসের যাত্রাসূচি: ১.সকাল ৫:৩০ থেকে ৬:০০ এর মধ্যে সবগুলো বাস ক্যাম্পাস ত্যাগ করে। ৭:০০ টায় নিউমার্কেট থেকে পুনরায় ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। ২.দুপুর ২:০০ টায় ক্যাম্পাস থেকে কাপ্তাই রাস্তার মাথায় যায় এবং সাথে সাথে ফিরতি যাত্রা করে। ৩.বিকেল ৫:০০ টায় ক্যাম্পাস ছেড়ে নিউমার্কেট রওনা করে। নিউমার্কেট থেকে উক্ত বাসগুলো রাত ৮:০০ টায় ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

প্রয়োজনের তুলনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসসংখ্যা অপ্রতুল। বাসগুলো ধারণক্ষমতার প্রায় দ্বিগুণ যাত্রী বহন করতে বাধ্য হয়। এগুলোর মধ্যে কয়েকটি বাস তাদের কার্যকর মেয়াদকাল পার করেছে।

অনুষদ এবং বিভাগ সমূহ

চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) এ বর্তমানে ৫ টি অনুষদের অধীনে ১৩ টি বিভাগ রয়েছে।

অনুষদের নাম বিভাগ সমূহ স্নাতক শ্রেণীতে আসনসংখ্যা
তড়িৎ এবং কম্পিউটার প্রকৌশল অনুষদ তড়িৎ এবং ইলেকট্রনিক্স প্রকৌশল বিভাগ
কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগ
ইলেকট্রনিক্স ও টেলিকমিউনিকেশন প্রকৌশল
১৩০
১৩০
৩০
পুরকৌশল অনুষদ পুরকৌশল বিভাগ
দূর্যোগ ও পরিবেশ কৌশল বিভাগ
পুর ও পানিসম্পদ কৌশল বিভাগ
১৩০

৩০
 
যন্ত্র প্রকৌশল অনুষদ যন্ত্র প্রকৌশল বিভাগ
পেট্রোলিয়াম ও মাইনিং প্রকৌশল
মেকাট্রনিক্স ও ইন্ড্রাষ্টিয়াল কৌশল বিভাগ
১৩০
৩০
৩০
প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদ রসায়ন বিভাগ
গণিত বিভাগ
পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ
 
স্থাপত্য এবং পরিকল্পনা অনুষদ স্থাপত্য বিভাগ
নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ
মানবিক বিভাগ

৩০
৩০

 

আবাসিক হল সমূহ

হলের নাম প্রভোস্ট আসনসংখ্যা
শহীদ মোঃ শাহ হল (South Hall) ড. মুহাম্মদ আবদুল ওয়াজেদ ৪১৫
ডঃ কুদরত-ই-খুদা হল (Q.K Hall) ড. শামসুল আরেফিন ৪৩৩
শহীদ তারেক হূদা হল (North Hall) ড. সজল চন্ত্র বণিক ৩৭৬
সুফিয়া কামাল হল (Ladies Hall) ড. রণজিৎ কুমার সূত্রধর ২০০
বঙ্গবন্ধু হল (New hall) ড. দেলোয়ার হোসেন ৫৭২

 


Share with :

Facebook Twitter